dmcbLogo
করোনা সম্পর্কে বার্তা জানতে ক্লিক করুন !
Total Visitor web counter Counting since March 26, 2008

Women Empowerment

আমি সাজু আক্তার। আমার ব্যবসায়িক ঠিকানা মেসার্স সাজ বিউটি পার্লার, হাসপাতাল গেইট, পটিয়া। বিনিয়োগ গ্রহনের পূবে আমি নিজস্ব স্বল্প পুঁিজ নিয়ে স্বল্প পরিসরে ব্যবসা করতাম। আমি প্রথমে ১০০০০০/- টাকা বিনিয়োগ গ্রহন করি এবং সর্বশেষ ২,০০,০০০/- টাকা বিনিয়োগ গ্রহন করি। আমি আমার ব্যবসা ও সংসার নিয়ে অনেক সুখে আছি। আপনাদেও সহযোগিতার কারণে ক্ষুদ্র মহিলা উদোক্তা হিসেবে বিভিন্ন সংগঠন থেকে স্বর্ণপদক অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। ডিএমসিবিএল এ সহজ শর্তে জামানতবিহীন বিনিয়োগ প্রদানের ফলে আজ আমি স্বনির্ভর হতে পেরে ডিএমসিবিএল এর পরিবারের প্রতি ধন্যবাদ জানাচ্ছি। আমি আমার ব্যবসা ও সংসার নিয়ে অনেক সুখে আছি। আপনাদের সহযোগিতার কারণে ক্ষুদ্র মহিলা উদোক্তা হিসেবে বিভিন্ন সংগঠন থেকে স্বর্ণপদক অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি। ডিএমসিবিএল এ সহজ শর্তে জামানতবিহীন বিনিয়োগ প্রদানের ফলে আজ আমি স্বনির্ভর হতে পেরে ডিএমসিবিএল এর পরিবারের প্রতি ধন্যবাদ জানাচ্ছি।

আমি শাহিদা বেগম । আমার ব্যবসায়িক নিরিবিলি হোটেল, সাইনবোর্ড বাজার, কচুয়া বাজার ,বাগেরহাট। ব্যবসায়ে ভালো অভিজ্ঞতা থাকলেও নগদ পুঁজির অভাবে ব্যবসা সম্প্রসারন করতে পারছিলাম না। বিনিয়োগ গ্রহনের পূর্বে আমি স্বামীর সাথে স্যানেটারীর রিং বানানোর কাজ করতেন। পূঁজির অভাবে তখন ব্যবসার অবস্থা ভালো ছিল না। ১১ জনের সংসার চালানো খুবই কষ্টকর ছিল। আমি ডিএমসিবি থেকে ৫০,০০০/- টাকা বিনিয়োগ গ্রহন করে হোটেল ব্যবসা শুরু করি। বিনিয়োগ গ্রহনের পর থেকে ব্যবসা সম্প্রসারন করে ব্যবসায়িক ভাবে সফলতা অর্জন করেন। এরপর আর পিছনে তাকাতে হয়নি। বর্তমানে আমি তার বড় ছেলেকে ভ্যান গাড়ী কিনে দিয়েছেন। স্বামী সহ দুইজন ব্যবসা দেখাশুনা করি।

আমি শাহানারা বেগম। আমার ব্যবসায়িক ঠিকানা নিমন্ত্রন হোটেল, সাইনবোর্ড বাজার, কচুয়া বাজার ,বাগেরহাট। আমার ব্যবসায়ে ভালো অভিজ্ঞতা থাকলেও নগদ পুঁজির অভাবে ব্যবসা সম্প্রসারন করতে পারছিলেন না। বিনিয়োগ গ্রহনের পূর্বে আমি দর্জির কাজ করতাম। তখন ব্যবসার অবস্থা ভালো ছিল না। ব্যাংকের পুরাতন গ্রাহক এবং তার প্রতিবেশী ব্যবসায়ীর নিকট থেকে তিনি জানতে পারেন ডিএমসিবি সৎ ও কর্মঠ ব্যবসায়ীদের সহজ শর্তে বিনিয়োগ প্রদান করে থাকে। তারপর তিনি ফিল্ডের বিনিয়োগ কর্মকর্তার সাথে বিনিয়োগ গ্রহনের জন্য যোগাযোগ করি। আমি ডিএমসিবি থেকে ৫০,০০০/- টাকা বিনিয়োগ গ্রহন করে হোটেল ব্যবসা শুরু করি। বিনিয়োগ গ্রহনের পর থেকে ব্যবসা সম্প্রসারন করে ব্যবসায়িক ভাবে সফলতা অর্জন করি। এরপর আর তাকে পিছনে তাকাতে হয়নি। বর্তমানে আমি সন্তানদের নিয়মিত স্কুলে পাঠায় ও স্বামী সহ দুইজন ব্যবসা দেখাশুনা করি।

আমি মোছাঃ জীবন নেসা ০২ সন্তানের জননী। আমি একজন তৈরি পোশাক ব্যবসায়ী। আমার ব্যবসায়িক ঠিকানা আরব লেডিস কালেকশন, পৌর মার্কেট (২য় তলা), পূর্ব বাজার, , জয়পুরহাট। ব্যবসার অভিজ্ঞতা ও আন্তরিকতা থাকলেও পুজির অভাবে ব্যবসা সম্প্রসারন করতে পারছিলাম না। এমন সময় ইনভেষ্টমেন্ট অফিসার জনাব মোঃ আব্দুস সোবহান এর মাধ্যমে জানতে পারলাম যে দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ বিনা জামানতে শহজ শর্তে বিনিয়োগ প্রদান করে থাকে। এ সব জেনে আমি একদিন ব্যাংকে গিয়ে শাখা ব্যবস্থাপককে আমার ব্যবসার বিস্তারিত জানালাম। শাখ্ াব্যবস্থাপক সব কিছু বিবেচনা করে এবং আমার বড় হওয়ার প্রবল আগ্রহকে প্রাধান্য দিয়ে প্রথমে আমাকে এক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ দিলেন। এর পর আর আমাকে পিছন ফিরে তাকাতে হয় নি। প্রথম গ্রহনকৃত এক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ সময়মত পরিশোধ করেছি। ২য় বার দুই লক্ষ টাকা বিনিয়োগ নিয়ে ব্যবসা সম্প্রসারন করেছি। বর্তমানে আমি আরব লেডিস কালেকশন, পৌর মার্কেট (২য় তলা), পূর্ব বাজার, , জয়পুরহাট এর একজন সফল তৈরি পোষাক ব্যবসায়ী। ডিএমসিবি আমার ভাগ্যকে বদলে দিয়েছে। আমি আমার এই সাফল্যের জন্য কৃতিত্ব দিতে চাই দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ কে । আমি প্রতিষ্ঠানটির উত্তরত্তর সাফল্য কামনা করছি।

আমি মোছাঃ নাসরিন বেগম ০১ সন্তানের জননী। আমার ব্যবসায়িক ঠিকানা সাজ লেডিস কালেকশন, পৌর মার্কেট (২য় তলা), পূর্ব বাজার, , জয়পুরহাট। আমি একজন তৈরি পোশাক ব্যবসায়ী। আমি পৌর মার্কেটে ছোট একটি তৈরি পোশাকের ব্যবসা শুর করেছিলাম। কিন্তু পুজির অভাবে ব্যবসা বড় করতে পারছিলাম না। এমন সময় ইনভেষ্টমেন্ট অফিসার জনাব মোঃ আব্দুস সোবহান এর মাধ্যমে জানতে পারলাম যে দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ বিনা জামানতে শহজ শর্তে বিনিয়োগ প্রদান করে থাকে। আমি সরাসরি ব্যাংকে গিয়ে শাখা ব্যবস্থাপকের সঙ্গে কথা বললাম। আমার ব্যবসার বিস্তারিত জানালাম। শাখ্ াব্যবস্থাপক সব কিছু বিবেচনা করে এবং আমার ব্যবসার অভিজ্ঞতার আলোকে প্রথমে আমাকে এক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ দিলেন। এর পর আর আমাকে পিছন ফিরে তাকাতে হয় নি। প্রথম গ্রহনকৃত এক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ নিয়ে সময়মত পরিশোধ করেছি। ৩য় বার তিন লক্ষ টাকা বিনিয়োগ নিয়ে ব্যবসা সম্প্রসারন করেছি। বর্তমানে আমি সাজ লেডিস কালেকশন, পৌর মার্কেট (২য় তলা), পূর্ব বাজার, , জয়পুরহাট এর একজন সফল তৈরি পোষাক ব্যবসায়ী। আমি আমার এই সাফল্যের জন্য কৃতিত্ব দিতে চাই দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ কে । আমি প্রতিষ্ঠানটির উত্তরত্তর সাফল্য কামনা করছি। সেইসঙ্গে প্রতিষ্ঠানটির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

আমি জেমী আকতার একজন তৈরি পোশাক ব্যবসায়ী। আমার ব্যবসায়িক ঠিকানা জেমী ফ্যাশন , পৌর মার্কেট (২য় তলা), পূর্ব বাজার, , জয়পুরহাট। দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ এর আন্তরিক সহযোগিতায় আজ আমি স্বনামধন্য একজন ব্যবসায়ী। প্রথম দিকে ছোট আকারে ব্যবসা শুর করি। কিন্তু পুজির অভাবে ব্যবসা বড় করতে পারছিলাম না। এমন সময় ইনভেষ্টমেন্ট অফিসার জনাব মোঃ আব্দুস সোবহান এর মাধ্যমে জানতে পারলাম যে দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ বিনা জামানতে শহজ শর্তে বিনিয়োগ প্রদান করে থাকে। আমি আমার এক ব্যবসায়ী সহকর্মীর সাথে পরামর্শ করে ব্যাংকে গিয়ে শাখা ব্যবস্থাপকের সঙ্গে কথা বললাম। আমার ব্যবসার বিস্তারিত জানালাম। পরের দিন তিনি আমার দোকানে আসলেন এবং আমার ব্যবসার অভিজ্ঞতা বিবেচনা করে প্রথমে আমাকে এক লক্ষ টাকা বিনিয়োগ দিলেন। এর পর আর আমাকে পিছন ফিরে তাকাতে হয় নি। একে একে তিন বার বিনিয়োগ নিয়ে সময়মত পরিশোধ করেছি। সর্বশেষ তিন লক্ষ টাকা বিনিয়োগ নিয়ে ব্যবসা সম্প্রসারন করেছি। বর্তমানে আমি জেমী ফ্যাশন , পৌর মার্কেট (২য় তলা) পূর্ব বাজার, , জয়পুরহাট এর একজন সফল তৈরি পোষাক ব্যবসায়ী। আমি আমার এই সাফল্যের জন্য কৃতিত্ব দিতে চাই দি ঢাকা মার্কেন্টাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ কে । আমি প্রতিষ্ঠানটির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি।

< Prev123456789Next