Advisor's Message

Belayet Hossain
Advisor

বিসমিল্লাহির রাহমানির রাহিম
সম্মানিত শেয়ারহোল্ডারবৃন্দ
আস্সালামু আলাইকুম ওয়া-রাহমাতুল্লাহ্, আলহামদুলিল্লাহ্

আমি ব্যক্তিগতভাবে এবং দি ঢাকা মার্কেনটাইল কো-অপারেটিভ ব্যাংক লিঃ (ডিএমসিবিএল) এর পরিচালনা পর্ষদের পক্ষ থেকে আপনাদের সবাইকে আন্তরিক অভিনন্দন, ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আপনাদের একান্ত সহযোগিতা এবং আমাদের প্রতি অবিচল আস্থার কারনেই আজ ডিএমসিবিএল সাফল্যের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে সক্ষম হয়েছে। এ কথা গর্ব করে বলতে পারি, আমাদের প্রতি আপনাদের অবিচল আস্থা আছে বলেই নানা প্রতিকূল ব্যবসায়িক পরিবেশে আমরা আমাদের লক্ষ্য অর্জন করতে সক্ষম হয়েছি।
আপনারা এটাও অবগত আছেন যে, ১৯৭৩ সালে ডিএমসিবিএল এর যাত্রা শুরু হলেও আমাদের যাত্রা শুরু হয় মূলতঃ ২০০২ সাল থেকে। এই চলার পথে প্রতি নিয়ত মোকাবেলা করতে হয়েছে নানা প্রতিবন্ধকতা। সব প্রতিবন্ধকতা মোকাবেলা করে আজ আমরা ডিএমসিবিএল-কে দেশের শীর্ষস্থানীয় ও সাফল্যপূর্ন একটি বেসরকারি সমবায় ব্যাংকে রুপান্তর করতে সক্ষম হয়েছি। আমরা বিশ্বাস করি, আমাদের গুনগত গ্রাহক সেবা ও গ্রাহকদের চাহিদা অনুযায়ী যুগপযোগী উদ্ভাবনী প্রোডাক্ট এবং সর্বোপরি গ্রাহকদের প্রতি আমাদের আন্তরিকতার কারনেই ডিএমসিবিএল আজ সমবায় ব্যাংক হিসাবে গ্রাহকদের আস্থা ও পছন্দের শীর্ষে। গত ২০০২ সাল থেকে আমরা আমাদের সম্মানিত সদস্যবৃন্দদের মধ্যে থেকে যারা বিনিয়োগ গ্রহনের মাধ্যমে স্বাবলম্বী ও স্বচছল হতে চেয়েছেন তাদের কথা চিন্তা করে এ পর্যন্ত পাঁচ বার বিনিয়োগের মুনাফার হার হ্রাস করা হয়েছে। বিনিয়োগের মুনাফার হার হ্রাস করার পরও সকলের কঠোর পরিশ্রম, সততা, নিষ্ঠা ও দলগত কর্মস্পৃহা আমাদেরকে আজকের এ অবস্থানে নিয়ে এসেছে।
২০১২-২০১৩ অর্থ বছরের শুরু থেকেই দেশের সামষ্টিক অর্থনীতি একটি অস্থির অবস্থার মধ্যে দিয়ে অতিক্রম করেছে। দেশের আর্থিক খাত ও অর্থনীতি এই ধাক্কা থেকে রেহাই পায়নি। অন্যদিকে সমবায় সমিতির নীতিমালায় পরিবর্তন ও বিভিন্ন বিষয়ে কড়াকড়ি যা সমিতির ব্যবসাকে আরো কঠিন ও দুর্বিসহ করে তোলে। এর পরও আমরা মনে করি ডিএমসিবিএল পরিবারের নিষ্ঠা, পেশাগত দক্ষতা এবং ভাল করার প্রবল আকাঙ্খা একটি প্রতিকূল বছরেও আমাদেরকে ভাল ফল এনে দিয়েছে।আলোচিত অর্থ বছরে ব্যাংকের কোন নতুন শাখা খোলা হয়নি। এ সময়ে জনবল চাহিদা পুনর্মূল্যায়ন করা হয়েছে। একই সঙ্গে চলেছে প্রাতিষ্ঠানিক পুনর্গঠন। আর এসবের মাধ্যমে ব্যাংকের ব্যবসা ও কাঠামোগত ভারসাম্যহীনতা অনেকটাই দূর করা সম্ভব হয়েছে। গত বছর ব্যবসা মনিটরিং ও ঝুঁকি ব্যবস্থাপনা আরো জোরদার করা হয়।
আমাদের অভিজ্ঞতা বলে যে, নির্বাচনের বছরে রাজনৈতিক অস্থিরতা এবং আভ্যন্তরহীন বিনিয়োগের স্বল্পতা সামষ্টিক অর্থনীতিকে ব্যাহত করে। এতদসত্ত্বেও আগামী বছরগুলোতে আমরা আরো বড় লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারন করেছি এবং আমরা আশাবাদী আগামী বছরগুলোতে ব্যাংকের অবস্থা আরো গতিশীল ও শক্তিশালী হবে। আমি ব্যক্তিগত ভাবে বিশ্বাস করি, আগামী দিনগুলোতে আমাদের সৃজনশীল কর্মীরা দক্ষ ম্যানেজমেনেটর দিকনির্দেশনায় আরো গ্রাহকমুখী নতুন পন্য ও সেবা উদ্ভাবনে সক্ষম হবে যা প্রতিষ্ঠানকে নির্ধারিত লক্ষ্যে পৌছাতে সহায়তা করবে।
আমাদের উপর আপনাদের অপরিসীম বিশ্বাস ও আস্থা রাখায় আমাদের পুরো ডিএমসিবিএল পরিবারের পক্ষ থেকে আমি আপনাদেরকে হৃদয়ের গভীর থেকে ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানাই। আপনাদের নিঃশর্ত সমর্থন ও দিক নির্দেশনা, বিশ্বাস এবং আস্থা; প্রতিকুল রাজনৈতিক, ব্যবসায়িক ও অর্থনৈতিক চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার ক্ষেত্রে আমাদের অগ্রযাত্রায় সবচেয়ে বড় সহায়ক শক্তি হিসেবে কাজ করে আসছে। আমি আমাদের সম্মানিত রেগুলেটর, শেয়ারহোল্ডার, গ্রাহক, শুভানুধ্যায়ী, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়া এবং সকল স্টেকহোল্ডারদের গভীর কৃতজ্ঞতা জ্ঞাপন করছি। আপনাদের ধারাবাহিক সমর্থন, আস্থা এবং মূল্যবান পরামর্শ ও দিক নির্দেশনা আমাদেরকে সামনের দিকে এগিয়ে চলতে সব সময় সহায়তা করেছে। মহান আল্লাহ্ আমাদের সবার সহায় হোন।